সিটি ব্যাংক ফিক্সড ডিপোজিট একাউন্ট খোলার নিয়ম | সিটি ব্যাংক ফিক্স ডিপোজিট ডিপিএস ইন্টারেস্ট রেট কত?

সিটি ব্যাংক ফিক্সড ডিপোজিট একাউন্ট খোলার নিয়ম। আজকের পোষ্টের আলোচনার বিষয়: ফিক্স ডিপোজিট ডিপিএস একাউন্ট ইন্টারেস্ট রেট , ফিক্স ডিপোজিট ডিপিএস অ্যাকাউন্ট তৈরির ডকুমেন্ট এবং যোগ্যতা , সিটি ব্যাংক , কিভাবে সিটি ব্যাংক থেকে লোন নিতে হয় , ব্যাংক ফিক্সড ডিপোজিট একাউন্ট , Fixed Deposit ডিপিএস একাউন্টের ফিচারস


আসসালামুআলাইকুম বন্ধুরা, নতুন একটি পোস্টে আপনাকে স্বাগতম। আশা করি ভাল আছেন। আজকের এই পোস্টে আমরা কি নিয়ে আলোচনা করবো আশা করি উপরের আলোচনার বিষয় গুলো পড়ে বুঝতে পেরেছেন। আর যারা এখনও বুঝেন নাই তাদের জন্য আবার বলা হলো:


সিটি ব্যাংক ফিক্সড ডিপোজিট একাউন্ট খোলার নিয়ম। আজকের পোষ্টের আলোচনার বিষয়: ফিক্স ডিপোজিট ডিপিএস একাউন্ট ইন্টারেস্ট রেট , ফিক্স ডিপোজিট ডিপিএস অ্যাকাউন্ট তৈরির ডকুমেন্ট এবং যোগ্যতা , সিটি ব্যাংক , কিভাবে সিটি ব্যাংক থেকে লোন নিতে হয় , ব্যাংক ফিক্সড ডিপোজিট একাউন্ট , Fixed Deposit ডিপিএস একাউন্টের ফিচারস


আজকে আমরা আলোচনা করব সিটি ব্যাংক ফিক্স ডিপোজিট একাউন্ট খোলার নিয়ম। সিটি ব্যাংক ফিক্স ডিপোজিট ডিপিএস একাউন্ট ইন্টারেস্ট রেট। সিটি ব্যাংক ফিক্স ডিপোজিট একাউন্ট তৈরি করতে কি কি ডকুমেন্ট লাগবে ইত্যাদি সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য। তো চলুন বেশি কথা না বলে মূল পোস্ট শুরু করা যাক,,

কেন ফিক্স ডিপোজিট একাউন্ট খুলবেন?

ফিক্স ডিপোজিট একাউন্ট খোলার অন্যতম কারণ হলো- এই একাউন্টে আপনি টাকা জমা রাখলে সেই টাকার নির্দিষ্ট একটা পরিমাণ আপনি ইন্টারেস্ট হিসাবে পাবেন। সিটি ব্যাংকে সাধারণত একজন গ্রাহক চাইলে চার ধরনের ডিপিএস অ্যাকাউন্ট খুলতে পারে।

আপনি যদি সিটি ব্যাংকে ফিক্স ডিপোজিট একাউন্ট তৈরী করতে চান। টাকা ব্যাংকে জমা রেখে কম সময়ের মধ্যে লাভবান হওয়ার জন্য ফিক্স ডিপোজিট একাউন্ট করা হয়ে থাকে। ফিক্স ডিপোজিট একাউন্টে টাকা সুরক্ষিত থাকে এবং সাথে সেই টাকার ইন্টারেস্ট পাওয়া যায়। এটি হল ফিক্স ডিপোজিট একাউন্ট এর উপকারিতা।


আরো পড়ুন:


ফিক্স ডিপোজিট ডিপিএস একাউন্টের বৈশিষ্ট্য - ফিক্স ডিপোজিট একাউন্টের সুবিধা

এই একাউন্টে আপনি সর্বনিম্ন 50 হাজার টাকা থেকে আপনার চাহিদা অনুযায়ী যে কোন পরিমাণ টাকা জমা রাখতে পারবেন। এই একাউন্টের মেয়াদ এক মাস থেকে সর্বোচ্চ তিন বছর পর্যন্ত হয়ে থাকে। আপনি যদি তিন মাসের জন্য একাউন্ট করেন।

তাহলে তিন মাস পর আপনি আপনার জমাকৃত টাকাসহ যে ইন্টারেস্ট হবে সেটা আপনি উত্তোলন করতে পারবেন। এছাড়াও এই একাউন্টের রয়েছে লোন সুবিধা। আপনার যদি ফিক্স ডিপোজিট একাউন্ট থাকলে, আপনারা যে ব্যাংকে একাউন্ট আছে সেই ব্যাংক থেকে আপনি লোন নিতে পারবেন।

সিটি ব্যাংক ফিক্স ডিপোজিট একাউন্ট খোলার জন্য কি কি ডকুমেন্ট লাগে? - সিটি ব্যাংক ডিপিএস অ্যাকাউন্ট তৈরির ডকুমেন্ট

সিটি ব্যাংক ফিক্স ডিপোজিট একাউন্ট খোলা একদম সহজ। ফিক্স ডিপোজিট একাউন্ট করার জন্য আপনার দরকার হবে- আপনি নিজে যদি ফিক্স ডিপোজিট অ্যাকাউন্ট তৈরি চান। তাহলে আপনার বয়স কমপক্ষে 18 বছর হতে হবে। অন্যদের ক্ষেত্রেও একই নিয়ম প্রযোজ্য।

যে ব্যক্তি অ্যাকাউন্ট তৈরি করবে তাকে অবশ্যই বাংলাদেশের নাগরিক হতে হবে। যে ব্যক্তি অ্যাকাউন্ট তৈরি করবে সেই ব্যক্তির 2 কপি ছবি লাগবে। ছবি টা অবশ্যই পুরাতন বা আগে তোলা ছবি হওয়া যাবে না।

যে ব্যক্তি অ্যাকাউন্ট তৈরি করবে তার অবশ্যই এনআইডি কার্ড, সার্টিফিকেট বা সাপোর্টের প্রয়োজন হবে। এবং একাউন্ট কারী ব্যাক্তির উপার্জনের বা আয়ের ডকুমেন্টের প্রয়োজন হবে। এছাড়াও প্রয়োজন হবে ই-টিন সার্টিফিকেট

এবার আপনার একজন নমিনি নির্বাচিত করতে হবে এবং সেই নমিনির এনআইডি কার্ড বা সার্টিফিকেট এ পাসপোর্ট ইত্যাদি প্রয়োজন হবে। আপনি আপনার একাউন্টের নাম হিসেবে যাকে নির্বাচিত করবেন তার এক কপি ছবি প্রয়োজন হবে।

নমিনি অর্থ কি? | নমিনি মানে কি?

উপরে আমরা শুধু নামেনি নামেনি করেছি কিন্তু অনেকে হয়তো বুঝতে পারেন নাই নমিনি মানে কি বা নমিনি অর্থ কি? নমিনি অর্থ বোঝায় অভিভাবক। আপনার কোন কিছু হলে, যে ব্যক্তি আপনার একাউন্টের সকল তথ্য এবং আপনার একাউন্টে জমা থাকা টাকা উত্তোলন করতে পারবেন তাঁকে নমিনি বলা হয়।

ফিক্স ডিপোজিট ডিপিএস ইন্টারেস্ট রেট

পূর্বেই বলেছি, এই একাউন্টে সর্বনিম্ন এক মাস থেকে সর্বোচ্চ তিন বছর পর্যন্ত আপনি টাকা জমা রাখতে পারবেন। আপনার জমাকৃত টাকার উপর নির্দিষ্ট অ্যামাউন্ট লাভ পাবেন।

কত মাস টাকা জমা রাখলে কত টাকা ইন্টারেস্ট পাওয়া যায়?

আপনি যদি সিটি ব্যাংকে এক মাসের জন্য ফিক্স ডিপোজিট একাউন্ট এর অধীনে টাকা জমা রাখেন তাহলে আপনি এক মাস পর আপনার সর্বমোট টাকার উপর 100 টাকায় 1.5 টাকা হারে লাভ পাবেন। অর্থাৎ আপনি 1.5% শতাংশ ইন্টারেস্ট পাবেন এক মাসের জন্য টাকা জমা রাখলে।

আর আপনি যদি সিটি ব্যাংকে তিন মাসের জন্য ফিক্স ডিপোজিট একাউন্ট এর অধীনে টাকা জমা রাখেন তাহলে আপনি তিন মাস পর আপনার সর্বমোট টাকার উপর 100 টাকায় 2.5 টাকা হারে লাভ পাবেন। অর্থাৎ আপনি 2.5% শতাংশ ইন্টারেস্ট পাবেন তিন মাসের জন্য টাকা জমা রাখলে

এবং আপনি যদি সিটি ব্যাংকে ছয় মাসের জন্য ফিক্স ডিপোজিট একাউন্ট এর অধীনে টাকা জমা রাখেন। তাহলে আপনি ছয় মাস পর আপনার সর্বমোট টাকার উপর 100 টাকায় 3 টাকা হারে লাভ পাবেন। অর্থাৎ আপনি 3% শতাংশ ইন্টারেস্ট পাবেন ছয় মাসের জন্য টাকা জমা রাখলে

যদি সিটি ব্যাংকে এক বছরের জন্য ফিক্স ডিপোজিট একাউন্ট এর অধীনে টাকা জমা রাখেন তাহলে আপনি এক বছর পর আপনার সর্বমোট টাকার উপর 100 টাকায় 3.5 টাকা হারে লাভ পাবেন। অর্থাৎ আপনি 3.5% শতাংশ ইন্টারেস্ট পাবেন এক বছরের জন্য টাকা জমা রাখলে।

যদি সিটি ব্যাংকে দুই বছরের জন্য ফিক্স ডিপোজিট একাউন্ট এর অধীনে টাকা জমা রাখেন তাহলে আপনি দুই বছর পর আপনার সর্বমোট টাকার উপর 100 টাকায় 4 টাকা হারে লাভ পাবেন। অর্থাৎ আপনি 4% শতাংশ ইন্টারেস্ট পাবেন দুই বছরের জন্য টাকা জমা রাখলে

যদি সিটি ব্যাংকে তিন বছরের জন্য ফিক্স ডিপোজিট একাউন্ট এর অধীনে টাকা জমা রাখেন তাহলে আপনি তিন বছর পর আপনার সর্বমোট টাকার উপর 100 টাকায় 3 টাকা হারে লাভ পাবেন। অর্থাৎ আপনি 3% শতাংশ ইন্টারেস্ট পাবেন তিন বছরের জন্য টাকা জমা রাখলে

শেষ কথাঃ

আজকের পোস্টে আমরা দেখানোর চেষ্টা করেছি সিটি ব্যাংক ফিক্স ডিপোজিট একাউন্ট খুলতে আপনার কি কি তথ্য প্রয়োজন হবে, সিটি ব্যাংক ফিক্স ডিপোজিট একাউন্ট ইন্টারেস্ট রেট কত? আশা করি আমি আপনাদের সুন্দর ভাবে বুঝাতে পেরেছি। পোস্টটি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করে দিবেন।

Post a Comment

Previous Post Next Post